রক্তে উচ্চ কোলেস্টেরল স্ট্রোকের একটা বড় কারণ/রিস্ক ফ্যাক্টর। কোলেস্টেরল ছাড়াও স্ট্রোকের আরও বেশ কিছু রিস্ক ফ্যাক্টর আছে। এগুলোর মধ্যে কিছু কিছু কারণ/ রিস্ক ফ্যাক্টর পরিবর্তন করা যায়। আবার কিছু কিছু কারণ/ রিস্ক ফ্যাক্টর পরিবর্তন করা যায় না।

পরিবর্তনযোগ্য ঝুঁকিসমূহঃ

১) উচ্চ রক্তচাপ থাকা।

২) ডায়াবেটিস থাকা – ডায়াবেটিস রোগীদের স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনা যাদের ডায়াবেটিস নেই তাদের চেয়ে প্রায় ৬ গুন বেশী।

৩) ধূমপান করা।

৪) অ্যালকোহল পান ও মাদক গ্রহণ করা।

৫) বেশী তেল-চর্বি খাওয়া।

৬) বেশী লবণ খাওয়া।

৭) শাক-সবজি, ফলমূল ও আশঁযুক্ত খাবার কম খাওয়া।

৮) শারীরিক পরিশ্রম বা ব্যায়াম না করা।

৯) স্থূলতা বা শরীরের ওজন বেশী থাকা।

পরিবর্তনযোগ্য নয়, এমন ঝুঁকিসমূহঃ

১) বয়স – বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্ট্রোকের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।

২) পারিবারিক ইতিহাস – পরিবারে কারও স্ট্রোক হয়ে থাকলে, বিশেষ করে বাবা বা মায়ের স্ট্রোক হয়ে থাকলে, তাদের সন্তানদেরও স্ট্রোকের সম্ভাবনা বেশী থাকে।

৩) জেন্ডার – মহিলাদের চাইতে পুরূষদের স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনা বেশী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 2 =