গাজর, পাকা আম, যে কোন রঙীন পাকা ফল, পালংশাক, মিষ্টি আলু, মূলা প্রভৃতি বিটা ক্যারোটিনযুক্ত খাদ্য। লেবু বা যে কোন টক ফল, পেয়ারা, ক্যাপসিকাম, আমলকি ইত্যাদি ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ খাদ্য। সয়াবিন, শস্যদানা, সবুজ শাকপাতার মত ভিটামিন ‘ই’ সমৃদ্ধ খাদ্য। এরকম যে কোন প্রাকৃতিক খাবার করোনারি ধমনীর ভেতরে জমা হওয়া খারাপ কোলেস্টেরলকে জারিত হতে না দিয়ে (অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট) করোনারি হৃদরোগ তথা হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এছাড়া রসুন রক্তের কোলেস্টেরল কমায় এবং ধমনীর মধ্যে রক্ত জমাট বাঁধা আটকাতেও বিশেষভাবে কার্যকরী। তাই রোজ রসুনের দু’তিনটি কোয়া খোসা ছাড়িয়ে থেঁতো করে একটানা কিছুদিন খেলে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা কমবে অনেকটাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + fourteen =